টিপস্

Ruksana akhter 3 months ago Views:79

রোদ থেকে বাঁচাতে বাচ্চাকে কি সানস্কিন ব্যবহার করছেন??


রোদ থেকে বাঁচাতে বাচ্চাকে সানস্ক্রিন  দিচ্ছেন কি? উল্টো ক্ষতি করছেন না তো!



রোগ থেকে বাঁচতে ছোট বাচ্চাদের অনেকেই সানস্ক্রিন মাখান। বাজারে বিভিন্ন কোম্পানির বাচ্চাদের সানস্ক্রিন পাওয়া যায়। তা বলে ভাববেন না যে এই সব সানস্ক্রিনে উপস্থিত রাসায়নিক থেকে আপনার সন্তানের কোনও ক্ষতি হবে না। তাই কেনার আগে দেখে নিন।

    হাইলাইটস

ত্বক বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন যে বাচ্চার কোমল ত্বকে সানস্ক্রিন না লাগানোই ভালো।

সানস্ক্রিনে এমন কিছু কিছু রাসায়নিক উপাদান রয়েছে যা বাচ্চার ত্বকের জন্য ক্ষতিকর।

রোদ থেকে বাঁচাতে বাচ্চাকে সানস্ক্রিন মাখান?

এই সময় জীবন যাপন ডেস্ক: চিড়বিড়ানি গরম নিয়ে হাজির গ্রীষ্মকাল। সবে বৈশাখ মাস পরলেও রোদের তেজে এখনই প্রায় মাথা খারাপ হওয়ার জোগাড়। আর কড়া রোদ মানেই ত্বকে কালচে ছোপ। ট্যান থেকে বাঁচতে দিনের বেলা বাড়ি থেকে বেরনোর আগে সানস্ক্রিন মাখার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। বাজারে বাচ্চাদের জন্যও বিভিন্ন কোম্পানি সানস্ক্রিন রয়েছে। কিন্তু ছোট বাচ্চাদের সানস্ক্রিন লাগানো কি আদৌ তাদের জন্য ভালো, নাকি এতে তাদের উলটে ক্ষতি হচ্ছে?

ত্বক বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন যে বাচ্চার কোমল ত্বকে সানস্ক্রিন না লাগানোই ভালো। সানস্ক্রিনে এমন কিছু কিছু রাসায়নিক উপাদান রয়েছে যা বাচ্চার ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। দেখে নিন সানস্ক্রিনে থাকা কোন কোন উপাদানগুলি বাচ্চার জন্য ক্ষতিকর।

অক্সিবেনজোন

যে কোনও কোম্পানির সানস্ক্রিনে অক্সিবেনজোন নামে এই রাসায়নিক উপাদান থাকবেই। এই রাসায়নিক ত্বকে খুব তাড়াতাড়ি শুষে যায়। বাচ্চাদের ত্বকে এই রাসায়নিকের কারণে নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে। অক্সিবেনজোনের কারণে এগজিমা হয়ে যায় অনেকের। হরমোনের সমস্যাও দেখা দিতে পারে।

অকটিনোক্সেট

বাচ্চাদের ত্বক অত্যন্ত স্পর্শকাতর। সানস্ক্রিনের মধ্যে থাকা অকটিনোক্সেট নামক রাসায়নিক তাদের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। এর থেকে ফ্রি radical সৃষ্টি হতে পারে। যার ফলে ত্বকের কোষগুলি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ত্বকে এই ক্ষতির প্রভাব দীর্ঘ সময় পর্যন্ত থাকতে পারে। অকটিনোক্সেটের প্রভাবে বাচ্চাদের মধ্যে অনেক সময় হরমোনের সমস্যাও দেখা দেয়।

রেটিনিল পালমিনেট এবং হোমোসোলেট

এই রাসায়নিকটি ডিএনএ-এর ওপরে প্রভাব ফেলতে পারে। এর প্রভাবে টিউমার ও ক্যানসার হওয়ারও আশঙ্কা থাকে। আপনি যখনই বাচ্চার জন্য সানস্ক্রিন কিনবেন, অবশ্যই তার উপাদান কী আছে প্যাকেটের গায়ে লেখা দেখে নেবেন। বাচ্চার জন্য কেনা সানস্ক্রিনে এই রাসায়নিক যেন না থাকে।

বিশেষজ্ঞদের মতে বাচ্চাকে সানস্ক্রিন লাগানোর পরিবর্তে কড়া রোদে বাইরে বের না করার চেষ্টা করুন। ভিটামিন ডি-এর জন্য় গায়ে রোদ লাগানো ভালো। তবে গ্রীষ্মের দুপুরের কড়া রোদ এড়িয়ে যাওয়া উচিত। ছয় মাসের কম বয়সী কোনও বাচ্চার সানস্ক্রিন লাগাতে বারণ করছেন বিশেষজ্ঞরা। এই বয়সের বাচ্চাদের কড়া রোগে নেহাত বের করতে হলে হালকা সুতির গা ঢাকা জামাকাপড় পরান।




Comment


Recent Post